img
Home / Weight Lose / Some Tips for Weight Loss

Some Tips for Weight Loss

/
/
21 Views

The body is not fat, but fat in stomach area or in some parts of the body, it is very frustrating. There is a lot to say about this nowadays. Is there no solution? Of course there is. Let’s know some of the methods that will protect you from unwanted fat in the body.

1. Start the morning every day with lemon soup:

This is one of the most effective methods of reducing belly fat. Take 1 glass of light hot water and lemon lemon into the chip. Take a little salt with it. If you wish, you can also mix a little honey. But do not mix sugar. Drink this oyun every morning. This leak increases your metabolism and reduces fat stomach.

2. Eat less white rice or leave it for a few days to eat rice.

Add different wheat grains instead of white rice rice to your daily diet list. Besides, you can add red rice rice, wheat bread, oats and other grains.

3. Stay away from the sugar food, a little bit:

That is, say no to sugar and take good leave for some time from sweet foods such as sweet, chocolate, ice cream, firni, semai etc.

4. Avoid Oily Foods:

High oiled foods and cold drinks keep fat in different places of the body. Such as our stomach or thighs. So you have to understand that these foods should be excluded from the list.

5. Drink Plenty of Water:

Drink plenty of water if you want to get rid of your stomach fat, drink enough water every day to increase the metabolism of your body, as well as remove the toxic components of your body. So water is called natural cleaner.

6. Take Raw Garlic and Lemon Juice:

Take a few cloves raw garlic in the morning and then take juice of lemon. This treatment will help you to lose weight and make blood flow easier.

7. Avoid Non Veg Foods:

As long as the abdominal fat is not reduced, the non-veg food i.e. meat, fish, leg, milk should be removed. But the pieces of fish can be eaten by the skin. But should be eaten less than that.

8. Take Fruits and Vegetables:

Fill the food list with fruit and vegetables. Eat fruits and vegetables every morning and afternoon. But in this case, select the national fruit. This practice will cure antioxidants, vitamins and minerals in your body.

9. Eat sour food.

Surprised? Do not be surprised Eat sour but the salsa comes from cinnamon, ginger, pepper and cinnamon. Use these to cook. These spices are healthy. They increase the insulin supply of the body and help reduce blood sugar levels. So these diabetes patients are also very helpful.

10. Take Regular Exercise:

There is no substitute for exercise to reduce fat after all.
It seems to me that all foods are forbidden. But to get a nice and healthy body, you have to bear some. It does not have to say “something to get done to get something.”

শরীর মোটা নয় কিন্তু পেটে অনেক মেদ কিংবা দেহের কিছু কিছু স্থানে মেদ জমায় খুবই অস্বস্তি বোধ করছি। এমন কথা অনেক বেশি শোনা যায় আজকাল। এর কি কোন গতি নেই? আছে অবশ্যই আছে। আসুন জেনে নিই কয়েকটি পদ্ধতি যা আপনাকে শরীরের অবাঞ্ছিত মেদ থেকে রক্ষা করবে।

১. প্রতিদিন সকালটা শুরু করুন লেবুর সরবত দিয়ে। এটা হলো পেটের মেদ কমানোর সবচেয়ে কার্যকরী ১টি পদ্ধতি। ১টি গ্লাসে হালকা গরম পানি নিয়ে তাতে লেবু চিপে সরবত করে নিন। সাথে একটু লবণ মিশিয়ে নিবেন। ইচ্ছে হলে একটু মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন। কিন্তু চিনি মিশাবেন না। প্রতিদিন সকাল বেলা এই সরবতটি পান করুন। এই সরবত আপনার বিপাক প্রক্রিয়া বাড়ায় এবং পেটের মেদ কমায়।

২. সাদা ভাত কম খান অথবা কিছুদিনের জন্য ছেড়ে দিন সাদা চালের ভাত খাওয়া। সাদা চালের ভাতের বদলে বিভিন্ন গম জাতীয় শস্য যুক্ত করে নিন আপনার প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায়। তাছাড়া লাল চালের ভাত, গমের রুটি , ওটস, অন্যান্য শস্য যুক্ত করে নিতে পারেন।

৩. চিনি জাতীয় খাবার থেকে দূরেই থাকুন একটু। অর্থাৎ চিনিকে না বলুন এবং মিষ্টি জাতীয় খাবার যেমন মিষ্টি, চকলেট, আইসক্রিম, ফিরনী, সেমাই ইত্যাদি থেকে কিছুদিন এর জন্য বিদায় নিয়ে নিন।

৪. উচ্চ তেল যুক্ত খাবার এবং কোল্ড ড্রিঙ্কস গুলো শরীরের বিভিন্ন জায়গায় চর্বি জমিয়ে রাখে। যেমন আমাদের পেট কিংবা উরু। সুতরাং বুঝেই ফেলেছেন যে এই খাবার গুলো তালিকা থেকে বাদ দিয়ে দিতে হবে।

৫. প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন যদি আপনি আপনার পেটের মেদ কাটিয়ে উঠতে চান তবে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান আপনার শরীরের বিপাকের হার বাড়ানোর পাশাপাশি আপনার শরীরের বিষাক্ত উপাদান গুলোকে দূর করে দিবে। তাই পানিকে প্রাকৃতিক ক্লিঞ্জার বলা হয়।

৬. কাঁচা রসুনের কয়েক কোয়া সকাল বেলা চুষে খান এবং তার পরে লেবুর সরবতটি খান। এই চিকিৎসাটি আপনার ওজন কমানোর জন্য সাহায্য করবে এবং শরীরের রক্ত প্রবাহ সহজ করবে।

৭. যতদিন পেটের মেদ না কমবে ততদিন নন-ভেজ খাদ্য অর্থাৎ মাংস, মাছ, দিম, দুধ বাদ দিতে হবে। তবে মাছের টুকরোর চামড়া ফেলে খাওয়া যেতেই পারে। কিন্তু তুলনামূলক কম খাওয়া উচিত।

৮. খাদ্য তালিকাটি ফল আর সবজি দিয়ে পরিপূর্ণ করে নিন। প্রতিদিন সকাল এবং বিকাল এই দুই সময় ফল ও সবজি খান। তবে এক্ষেত্রে পানি জাতীয় ফল বাছাই করুন। এই অভ্যাসটি আপনার দেহে এন্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন এবং খনিজলবণ এর ঘাটতি পূরণ করবে।

৯. ঝাল খাবার খান। অবাক হচ্ছেন? অবাক হবেন না। ঝাল খাবেন কিন্তু ঝাল গুলো আসবে দারচিনি, আদা, গোলমরিচ এবং কাঁচামরিচ থেকে। এগুলো রান্নায় ব্যবহার করুন। এই মশলা গুলো স্বাস্থ্যকর। এগুলো শরীরের ইনসুলিন সরবরাহ বাড়ায় এবং রক্তের সুগার লেভেল কমাতে সাহায্য করে। তাই এগুলো ডায়াবেটিস রোগীর জন্যও বেশ উপকারী।

১০. সবকিছুর পরেও মেদ কমাতে ব্যায়ামের বিকল্প নেই।
মনে মনে ভাবছেন সব খাবারই নিষিদ্ধ। কিন্তু সুন্দর ও সুস্থ দেহ পেতে হলে কিছুটা তো সহ্য করতেই হবে। কথায় আছে না “কিছু পেতে হলে কিছু হাড়াতে হয়।”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *